আজকের এই ব্লাড-মুন বা রক্ত জোছনা ঘিরে আছে অসংখ্য মিথ

আজকে সন্ধ্যায় বারান্দায় গিয়ে দেখি একদম লালচে একটা চাঁদ উঠেছে। যেন গ্রহণ শেষে রক্তাক্ত শরীরে ঝুলে আছে আকাশের বুকে। এই রক্তাক্ত চাঁদ নিয়ে কত কাহিনী যে আছে! বাইবেলে কেয়ামত এর অন্যতম আলামত হিসেবে বলা আছে, সূর্য আলোহীন হয়ে পড়বে আর চাঁদ গাঢ রক্ত বর্ণ ধারণ করবে। এছাড়া বিভিন্ন ডাকিনীতন্ত্রের ধর্মমত গুলো যেমন উইকা বা আরাদিয়া র অনুসারীরা, যারা চন্দ্রদেবী ডায়নার পূজা করে থাকে তাদের জন্যে এই ব্লাড মুন বা রক্ত জোছনা খুব গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় আচার পালনের রাত। Sleeping half-moon

Photo Courtsy: Asfi Kabir

তাদের বিশ্বাস অনুযায়ী এই রাতে যারা জন্ম গ্রহণ করে তারা বিশেষ আধ্যাত্বিক ক্ষমতার অধিকারী হয়। ইসলাম ধর্মেও রমজান মাসে পর পর দুইবার সূর্যগ্রহণ ইমাম মাহদীর আবির্ভাবের লক্ষণ।

এই রক্ত জোছনার ব্যাপারে আরও একটা মজার তথ্য দেই। প্রথমে কেয়ামতের আলামত হিসাবে রক্ত জোছনার কথা শুনে ভয় পেয়েছেন তাদের ভয় হয়তো কিছুটা কাটতে পারে। এক বছরের ব্যবধানে পরপর চারটি গ্রহণ ও রক্ত জোছনা হওয়ার ঘটনাকে বলা হয় ‘টেট্রাড’, দশ বিশ বছর পর পর এমন হয়। আজ যে রক্ত জোছনা আমরা দেখছি, সেটা প্রথম গ্রহণ ছিলো। তারমানে এবছর আর সামনে বছর মিলিয়ে আরও তিনবার রক্ত জোছনা দেখতে পারবো আমরা। এর আগে এমন হয়েছিলো ২০০৩-০৪ সালে।

তাই যাদের আজকে চাঁদের দিকে তাকানোর একদম ফুসরত মেলেনি, তারা নিচের তারিখগুলো ডাইরীতে টুকে রাখতে পারেন!

৮ই অক্টোবর ২০১৪
২৮শে সেপ্টেম্বর ২০১৪
৫ই এপ্রিল ২০১৫

Advertisements

3 comments

  1. আমারে অন্ধ করে দিয়েছিলো চাঁদ -_- ব্যাস্ত থাকায় চাঁদ দেখার জন্য কাউরে মেসেজ দেয়া হইলো না আফসোস 😦 😉

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s