সবুজের ভেতর রক্তলাল সূর্য, আর তার ভেতর একটা সোনালী মানচিত্র: এই তো আমাদের বিজয়ের পতাকা!

আজকে ১৬ই ডিসেম্বর, বাংলাদেশের বিজয় দিবস। সকালে বাসা থেকে বের হয়েছিলাম কিছুক্ষণের জন্যে। দেখলাম সব মোটরসাইকেল, রিক্সা আর ট্যাক্সিগুলাতে ছোট ছোট পতাকা ঝুলছে। কয়েকটা বাসার বারান্দাতেও চোখে পড়লো লাল-সবুজ নিশান। পতাকা কপালে বেঁধে সাইকেল চালাচ্ছে স্কুলপড়ুয়া কিশোর। এছাড়া রাস্তার পাশে প্লাকার্ড তো আছেই। কিন্তু হঠাৎ করেই চোখটা আটকে গেলো একটা রিক্সার সামনে লাগানো ছোট্ট একটা কাগজের পতাকায়..লাল সবুজ পতাকার ভেতর সোনালী মানচিত্র!

সাথে সাথে শরীরের ভেরত রোমাঞ্চ অনুভব করলাম, এইতো মুক্তিযুদ্ধের পতাকা! এই পতাকাই আমি দেখেছি মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে নির্মিত সমস্ত চলচ্চিত্র আর বইয়ের পাতায় পাতায়। স্বাধীনতা যুদ্ধের নয় মাস ধরে এই পতাকাই ছিলো বাংলাদেশ…এই পতাকা উড়তো মুক্তাঞ্চলে, শরনার্থী শিবিরগুলাতে, মুক্তিবাহিনীর ট্রেনিং ক্যাম্পে। এই পতাকা তোলার অপরাধে প্রাণ দিয়েছে অগণিত মানুষ, আর এই পতাকা নিয়েই সদ্য স্বাধীন রাষ্ট্রে বিজয় মিছিল করেছিলো মুক্তিকামী জনতা। তাই এই পতাকাটা যুদ্ধকালীণ বাংলাদেশের প্রতীক, বাংলার মানুষের আগ্রাসন প্রতিরোধের সাক্ষী।

পরবর্তীতে হয়তো সরকারী প্রয়োজনে পতাকাকে সরলায়িত করা হয়েছে। কিন্তু এরকম কি করা যায় না, শুধু স্বাধীনতা দিবস আর বিজয় দিবসের দিনে সরকার এই পতাকাটা ব্যাবহার করবে?

(পোস্টের ছবিটা গুগল থেকে পাওয়া। কপিরাইট জণিত সমস্যা থাকলে দয়া করে জানাবেন, আমি সরিয়ে দিবো)

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s