মায়া বড় খারাপ জিনিস

হোমায়রা আদিবা

কিছুদিন আগের চলে যাওয়া ঐ চল্লিশটি কচি প্রাণের জন্যে আমরা শোকাহত। পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ এর মতো ছোট একটি দেশকে আলোকিত করা তারেক মাসুদ আর মিশুক মুনির এর চলে যাওয়ায়, বিশ্বাস করেন আমরা সত্যি-ই শোকাহত! এর প্রমাণ চান? কি আজব ! দেখছেন না ?? কতগুলো স্ট্যাটাস দিলাম ফেসবুকে, আর তর্কও কি কম করেছি একে অপরে? ঘুরে ফিরে কথা গিয়ে থেকেছে আওয়ামী লীগ আর বিএনপিতে। এর পর শুরু হয়েছে পদত্যাগ এর দাবি। এর বেশি আর কি-ই বা করার আছে ?? আমরা শোকাহত, হয়ত একটা ছোট্ট বাচ্চার খুব বেশি স্বপ্ন ছিল না, কিন্তু সে বড় হয়ে কি হবে এইটা ভেবে হয়ত তাঁর বুকে রোজ রোজ একটা ভয় আর আনন্দের শিহরন জাগত। এখনতো আর জাগবে না। তাঁর মা এর রোজ সকালে উঠে আর নাস্তা করবেন না তাঁর জন্য। পথ চেয়ে বসে থাকতে হবে না আদরের ছেলের জন্য। আহা কি সুখ…কত কাজ ই না কমে গেল আমাদের, জনসংখ্যা কমে গেলো।

এত কিছুর পর ও দোষ কিন্তু ভাগ্যের। কারও মতে রমজান মাসের, কারও মতে যোগাযোগ মন্ত্রীর, কারও মতে আওয়ামী লীগ এর, আর কারো মতে বিএনপি’র। আমার শোক কম, ভয় বেশি। আমি ভয় পাচ্ছি, আর এই ভয় নিয়ে বাঁচা আমার পক্ষে কষ্টকর। খুব কষ্ট হচ্ছে, আজকে বাসা থেকে বের হবার সময় মা যদি বলে দুপুরের মধ্যে ফিরে আসিস। আমি তোর জন্যে চিংড়ি রেঁধেছি, বুক এর মধ্যে ধুক করে উঠে। আজিব! এতো আদরতো ছিল না তোমার! এখন কেন ??

আম্মু তুমি অফিস এ যাবে, তো আবার সময় বের করে রাঁধ কেন…?? আম্মু তুমি মেইন রোড দিয়ে অফিস এ যেও না কিন্তু …বাবা তুমি কেন এত বাইরে বাইরে ঘুরো ?? এখন কি ছোট ছেলেদের মত আচরণ করার বয়স আছে তোমার ? তাহমীদ, তুই রোজ বিকেলে চুপটি করে ক্যান ধ্রুবর বাসায় যাস বলত ?? আমার ভয় লাগে, অনেক বেশি ভয়, তোকে ভয় এর জন্যে বকছি, তবু যদি তুই একটু বুঝতি! তোর-ই বা দোষ কি!

আমি কাউকে দোষ দিতে চাইনা ! আমি চাই-ই না যে দোষ দিবার কোন সুযোগ আসুক। আমি সুস্থ থাকতে চাই … রোজ রোজ একি ভয়ে থাকতে আর তো ভাল লাগে নাহ … আর এই মায়ার জ্বাল ছিঁড়তে ও পারি না…। দিন দিন খিটখিটে হয়ে যাচ্ছি … বাবা মা এর সাথে … আমি জানি না মৃত্যুর পর এর জীবন কেমন কিন্তু যদি আজকে আমি মারা যাই তবে আপনার(বিধাতা) কাছে অনুরোধ রইল …দয়া করে আমাকে সরাসরি নরকে নিয়েন … আমাকে পৃথিবীতে আর রাইখেন নাহ … আমি আমার মা বাবার কান্না দেখতে চাই নাহ … ধরে নিলাম আমি আজকে এক ঘাতক বাস এর আঘাতে নিহত এর পর হয়ত অনেক কিছুই হবে …অনেক কান্না অনেক স্ট্যাটাস আমি কিচ্ছু কিচ্ছু ভাবতে চাই না … আমি কিছু দেখতেই চাই না…

মায়া বড় খারাপ জিনিস

আচ্ছা! যদি তারেক মাসুদ শেষ একটা চিঠি লিখার সুযোগ পেতেন কি লিখতেন ??

মাগো,
আমি অনেক চেষ্টা করেছি তোমার জন্যে সবটুকু আমার। আমার ভেতরের সবটুকু দিয়ে তোমাকে ভালবেসেছি, তোমাকে হয়ত আরও বলার ছিল মা অনেক ভালবাসি। তোমার কোলে মরতে পেরে আমি খুশি। কিন্তু এমন থেতলিয়ে কেন মা…? তোমার শরীরে রক্তাক্ত রূপে পরে থাকতে খুব কষ্ট লেগেছে! আমার রক্তে তোমাকে ভিজাতে চাইনি! কিন্তু যে বাসের আঘাতে এমন হলো আমার, সে বাস ও তোমার কোন এক ছেলে-ই চালাচ্ছিল।

ওদের কি বুঝ হবে না মা ?? আমি চলে যাচ্ছি ! তবে তুমি কেদনা !

এরকম সবাই যদি একটা করে চিঠি লেখার সুযোগ পায় ! কতগুলো চিঠি জমল ??

মাগো,
আমি একটা ছোট মেয়ে তুমি আমাকে হয়ত চিনবে না! কিন্তু তুমি তো মা! আমার মা-টা বাসায় আমার জন্যে অপেক্ষা করছে! তুমি তাকে একটু জানি যে আমি তোমার কোলে শুয়ে আছি … আমি জানি যে আমি জানতে পারব কারা আমাকে অনেক ভালবাসে আর কিছুক্ষণের মধ্যেই হয়ত আমার জন্য অনেকেই কাঁদবে। কিন্তু আমি তো একেবারেই বলতে পারলাম না কাউকে, মা কে…বাবা কে…ছোট ভাইয়াটাকে ! আশেপাশের কত জন কে যে আমি তাদের কত্ত ভালবাসি! আমার চিঠি টা হয়ত এমন হতো…

আমিতো আর জানি না যে আমার সাথে এমন হবে কিনা, হলেও বা কি চিঠি লিখার সুযোগ পাব কি নাহ !! তাই লিখলাম …

আমার এক ফ্রেন্ড বলেছিল ব্যাঙ্গ না করে নিজে কিছু হও। ব্যাঙ্গ করার যোগ্যতা অর্জন করে এরপর বেঙ্গ করিস। আমি আশাবাদী, এই যোগ্যতা অর্জন করা পর্যন্ত আমি বেঁচে থাকব ! ভাল মানুষ সহজে মরে আমার মত শয়তানদের মরতে দেরি আছে!

কিন্তু যাদের করার আছে তাঁরা কি কিছু করছে ?? আমি আইন বুঝি না ! আমি নিয়ম বুঝি না সরকার বুঝি না ! আমি যে মায়া বুঝি ! উনাদের কি মায়া নাই…?? উনাদের কি মায়া নাই…?? উনাদের কি মায়া নাই…?? বাংলাদেশে প্রতিবছর প্রায় ৪০০০ লোক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যাচ্ছে। ৪০০০ মায়ার জাল ছিঁড়ে যাচ্ছে। এর বেশির ভাগ-ই হয়ে থাকে চালক এর ট্রাফিক আইন মেনে চলার ব্যাপারে অনীহা আর সাধারণ মানুষের সচেতনতার অভাবে। কালকে এর ভুক্তভোগী আপনি-ও হতে পারেন, যেহেতু আমাদের কিছুই করার নাই। আসুন আমরা মায়ার টান থেকে নিজেদের মুক্ত রাখি, আর যদি সেটা সম্ভব না হয় তবে ……আমি যখন কিছু বলতে চাই তখন কথা সাজাতে পারি না ।। আমার কথাগুলো এলোমেলো তাই দুঃখিত ! আর বানান এর ভুল এর জন্যে কান ধরে দুঃখ প্রকাশ করছি! কেন যেন আনিসুল হক এর লেখা ‘মা’ বইটার কথা মনে পড়ছে! নতুন একটা বই লেখার সময় এসেছে ! নাম হবে সন্তান…

Advertisements

3 comments

  1. লক্ষন যা দেখছি তাতে এই অবস্থা থেকে উত্তরনের কোনও সম্ভাবনা নেই, তাই নিকট ভবিষ্যতে এরকম চিঠি হয়তো আমাদের সবাইকেই লিখে রাখতে হবে প্রতিবার বাসা থেকে বের হওয়ার সময় … 😐

  2. chokhe pani chole aslo…. asolei to amn voyonkor prethibi tei amdr bash… ami hall a thki..basas asbo sunlei abbu ammu 2jon e bachcha der moto khushi hy…kintu gari te otar por shuru hy bar bar phone…akbar call missed hyei bas…kto rag koi duschinta koro na abr nijei vabi duschinta chara korbei ba ki…

  3. বাস্তবতা বরাবর ই নিষ্ঠুর … কিন্তু এখন মনে হচ্ছে বাস্তবতা আসলে ঘাতক !

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s