যৌবনের আগুন (ওমর খৈয়ামের একটি রুবাই)

(রুবাই হলো একপ্রকার ঠাসবুনোটের কবিতা, এর মাধ্যমে মূলত স্রষ্টার স্তুতি বা জীবনের গভীর দর্শনকে ফুটিয়ে তোলা হয়। আরবীতে রুবাই বলতে বুঝায় চার লাইনের কবিতা, যার শেষ অক্ষরের বিন্যাস a a b a; অর্থাৎ প্রথম, দ্বিতীয় ও চতুর্থ লাইন ছন্দবদ্ধ , আর তৃতীয় লাইনে হয় ব্যতিক্রম । রুবাই এর গঠন প্রতিটি লাইনের শেষ অক্ষর দেখে চেনা যায়। কোনও রুবাই এর শেষ অক্ষর যদি a হয় তাহলে এর দ্বিতীয় ও চতুর্থ চরনের শেষ অক্ষর-ও  a হবে। মাত্রা অনির্দিষ্ট, তবে প্রতিটি চরনে সমান রাখতে হয়। মধ্যযুগের আরবী ও ফার্সী সাহিত্যে এই কবিতারীতি সবচেয়ে বেশী পাওয়া যায়। রুবাই  এর সবচেয়ে উৎকৃষ্ট উদাহরন হতে পারে ওমর খৈয়ামের কালজয়ী গ্রন্থ রুবাইয়াত, যা আসলে একগুচ্ছ রুবাই এর সংকলন।)

হায়, যৌবনের আগুন নিভে গেছে কোন সময়!
এই জীবনের রসদ পৌছে গেলো শেষ সীমায়;
নাহ! কখনযে সবই মুছে হলো ম্লান নিরবে,
নেই অবশেষ; সবটা জুড়ে আছে স্মৃতি কথায়;

from Rubaiyyat of Omar Khaiyyam

A Rubai, taken from Rubaiyat

Advertisements

3 comments

  1. এই ছোট ছোট কবিতাগুলো বেশ ভালো লাগে। একরকম নেশা ধরে যায় পড়তে গেলে।
    অফটপিক: পোস্টের ফন্ট অনেক ছোট। পোস্টে HTML এডিটরে সবার প্রথমে দিয়ে সবার শেষে দিন। পোস্টের ফন্ট বড় হয়ে যাবে।

    • hmm..সামনে কিছু রুবাই, হাইকু, আর লিমেরিক একসাথে করে বড়োসড়ো একটা পোষ্ট দেয়ার ইচ্ছা আছে। ভালো লাগবে আশা করি 🙂

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s